আজকের তারিখ:জুলাই 5, 2020
গেমিং পিসি ২০২০ এর গাইড লাইন

গেমিং পিসি ২০২০ বিল্ড এর আল্টিমেট গাইডলাইন

গেমিং পিসি ২০২০
গেমিং পিসি ২০২০

গেমিং পিসি ২০২০ কি :

গেমিং পিসি আসলে আলাদা কোনো পিসি না, সহজেই অনেকে বুঝতে পারছেন যে এই পিসি গেম খেলা যায়, এখন কথা হচ্ছে অন্য পিসি তে কি গেম খেলা যায় না ?
একটি নরমাল পিসিতেও গেম খেলা যায়, একটি পিসি এর আগে গেমিং তখনি উল্লেখ করা হয় যখন সেই পিসি বর্তমান সময়ের সাথে পাল্লা দিইয়ে বিল্ড হয়েছে এবং আগামী এক – দের বছর এর মদ্যে সকল গেম কোন প্রকার সমস্যা ছাড়াই ভাল মানের গ্রাফিক্স সেটিং এ খেলা যাবে।

একটা গেমিং পিসি ২০২০ বিল্ড এর বিশেষত্ব কি ?

একটা গেমিং পিসি তে সচারচর উন্নতমানের হার্ডওয়্যার ব্যাবহার করা হয়ে থাকে,
এদের মদ্যে উল্লেখ্য হচ্ছে

  • গ্রাফিক্স কার্ড
  • অধিক কোর এবং স্পীড এর প্রসেসর
  • অধিক বাস স্পীড এর রেম
  • ভাল মানের মাদারবোর্ড
  • মেকানিক্যাল কীবোর্ড এবং মাউস
  • বেশি পাওয়ার প্রভাইড করা পাওয়ার সাপ্লাই
  • সলিড ড্রাইভ

এবং আমরা ক্রমে আলচনা করবো গেমিং পিসি ২০২০ এর গাইড লাইনে আমরা আপনাদের কি কি গাইড করছি, অর্থাৎ ২০২০ সালে যদি আপনি গেমিং পিসি বিল্ড করেন তাহলে আমাদের দেয়া এই গাইডলাইন ফলো করে আপনার পছন্দের ব্রান্ড এর হার্ডওয়্যার আপনি কিনতে পারবেন,
আমরা এখানে আপনাকে শুধু হার্ডওয়্যার এর ব্যাপারে কিছু আইডিয়া দিবো যাতে করে আপনাদের গেমিং পিসি পার্টস কিনতে সহজ হয়।
আমরা আপনাদের কে পরবর্তী তে বাজেট অনুজাই গেমিং পিসি কনফিগারেশন এর ব্যাপারে লিখে দিবো

গেমিং পিসির দাম / গেমিং পিসি বিল্ড করতে কত টাকা লাগতে পারে

গেমিং পিসির দাম সম্পূর্ণ নীরবর করবে আপনার পছন্দের উপর, যেমন মনে করে গেমিং পিসি কনফিগ এর জন্যে আপনি সিলেক্ট করলেন একটি রেম যার মুল্য ৪০০০ টাকা ,
কিন্তু একি কনফিগারেশন এর রেম আপনি পাচ্ছেন ৩৫০০ টাকা তে এবং অন্য কোন ব্রান্ড এর।
একটি গেমিং পিসি এর দাম ৪০ হাজার থেকে শুরু করে ১০ লাখ টাকার হয়ে পারে, পুরো ব্যাপারটাই আপনার পছন্দের উপর।

গেমিং পিসি বিল্ড !

গেমিং পিসি বিল্ড
Illustration of circuit

গেমিং পিসি এর প্রসেসর ঃ

গেমিং পিসির ক্ষেত্রে প্রসেসর একটি গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায়, কারন ২০২০ সালে আপনার জন্যে অপেক্ষা করছে AMD Ryzen (রাইজেন) সিরিজ, আর সাথে ইন্টেল তো থাকছেই,
ইন্টেল এর ফ্যানবয় কখনই রাইজেন কিনবে না আবার AMD এর ফ্যান বয় কখনই ইন্টেল কিনবে না, এখানেও একটা সমস্যা, তাই গেমিং পিসি বিল্ড এর জন্যে আপনাকে খুব সাবধানে এই বিষয় ঘুলো হ্যান্ডল করতে হবে, কারন প্রসেসর এর সাথে গ্রাফিক্স কার্ড এর বেমিল থাকাতে বটল নেক এর একটা সম্ভাবনা থেকেই যায়।
যদি আপনার বাজেট কম থাকে তাহলে আমি আপনাকে সাজেস্ট করবো রাইজেন সিরিজে চলে জাবার জন্যে, কারন রাইজেন এর মুহূর্তে ইন্টেল এর সাথে পাল্লা দিয়ে খুবি কম দামে ভাল মানের প্রসেসর বাজারে এনেছে,


যেখানে ইন্টেল এর একটা ছয় কোর এর প্রসেসর কিনতে আপনাকে গুনতে হবে ১৫ হাজার টাকা, সেখানে আপনি রাইজেন এর ৬ কোর এর প্রসেসর পাচ্ছেন মাত্র ১২ হাজার টাকায়, এছারা ইন্টেল থেকে কম দামে রাইজেন এর অন্যান্য প্রসেসর এর রয়েছে ইন্টেল এর চেয়ে বেশি খমতা,
তবে একটা ব্যাপার বলে রাখি, ইন্টেল এর প্রসেসর এ আপনি অবশ্যই রাইজেন থেকে ৫-১০ FPS বেশি পাবেন গেমিং এর খেত্রে ।
তাই সিদ্ধান্ত আপনার, গেমিং পিসি বিল্ড এর খেত্রে আপনি ইন্টেল নিবেন নাকি রাইজেন নিবেন সেটা নিয়ে কিছু সময় বেয় করুন এবং সিদ্ধান্ত নিন।

গেমিং পিসি এর মাদারবোর্ড ঃ

এবার আসুন গেমিং পিসির মাদারবোর্ড নিয়ে আলচনা করি, একটি গেমিং সিরিজ এর মাদারবোর্ড ৮ হাজার থেকে শুরু করে ৬০ হাজার এর মদ্যে পাওয়া যায়, এখন কথা হচ্ছে আপনি দামি মাদারবোর্ড কিনবেন নাকি কমদামি।

সবাই সাধারনত গেমিং পিসির জন্যে কম মুল্যের মাদারবোর্ড সিলেক্ট করে থাকেন, এটা আপনাদের সম্পূর্ণ একটি ভুল সিদ্ধান্ত আপনাদের জন্যে, কারন একটি মাদারবোর্ড এর এর অনেক কিছুই নীরবর করে গেমিং পিসির অন্যান্য যন্ত্রাংশে ,

সহজ একটি উধাহরন দেই, মনে করেন আপনার মাদারবোর্ড এর ওভার ক্লক এর খমতা নেই, কিন্তু আপনি প্রসেসর কিনেছেন একটি আনলক (ওভারক্লক) করা যায় এমন, কিন্তু এখন কি হবে ? আপনার মাদারবোর্ড তো ওভার ক্লক সমরথন করে না,
কিংভা আপনি কিনেছেন ৩২০০ বাস স্পীড এর রেম, কিন্তু আপনার মাদারবোর্ড মাক্স ২৪০০ বাস স্পীড সমর্থন করে।

মাদারবোর্ড কিনার খেত্রে কিছু জিনিষ মাথায় রাখবেনঃ

  • মাদারবোর্ড এর ওভার ক্লক এভিলিটি
  • মাদারবোর্ড এর ফ্যান কন্ট্রোল সিস্টেম
  • মাদারবোর্ড এর সাউন্ড সিস্টেম
  • মাদারবোর্ড SLI সমর্থক কিনা

মাদারবোর্ড এর ওভার ক্লক এর ব্যাপারে আগে লিখেছি,
এবার আসুন ফ্যান কন্ট্রোল সিস্টেম নিয়ে আলচনা করি, গেমিং পিসি তে কেসিং এ অতিরিক্ত ফ্যান লাগিয়ে নেয়া ভাল, এতে সকল হার্ডওয়্যার কুল থাকে, ফ্যান সিস্টেম ভাল থাকলে আপনি আপনার সিস্টেম থেকে ফ্যান কন্ট্রোল করতে পারবেন, অর্থাৎ সাইলেন্ট মোড এ পিসি ব্যাবহার করার ইচ্ছে থাকলে ফ্যান এর মোড সাইলেন্ট করে দিতে পারবেন আবার, টেম্প বেড়ে গেলে ফ্যান টার্বো মোড করে দিতে পারেন, কিনভা চাইলেই অটো মোড এ রাখতে পারেন,

সাউন্ড ঃ বর্তমান সময়ে গেমিং এর খেত্রে ভাল সাউন্ড এর বিশেষ প্রয়োজন, এবার যদি আপনি আলাদা সাউন্ড কার্ড কিনতে চান তাহলে এই ব্যাপার তা ইগ্নর করেন,
এই সময়ে ভাল মানের মাদারবোর্ড এর সাথে ক্রিয়েটিভ এর সাউন্ড সিস্টেম বুইল্ট ইন অবস্থায় পাওয়া যায়, তাই আমি আপনাকে এই ব্যাপারে বলবো যে মাদারবোর্ড কিনার আগে একটু দেখে নিবেন আপনার বোর্ড এর সাথে ক্রিয়েটিভ অথবা কোন সাউন্ড সিস্টেম আছে কিনা,

SLI ঃ যদি আপনার পরিকল্পনা থাকে একের অদিক গ্রাফিক্স কার্ড ব্যাবহার করবেন তাহলে অবশ্যই দেখে কিনবেন যে আপনার বোর্ড SLI সমর্থক কিনা।

রেমঃ

যদি আপনার গেমিং পিসির মাদারবোর্ড ওভার ক্লক এবং অধিক বাস স্পীড এর রেম সমর্থন করে থাকে তাহলে এই সময়ে আপনি আপনাকে অধিক বাস স্পীড এর রেম কিনুন, বর্তমান সময়ে ৩২০০ বাস স্পীড এর রেম জনপ্রিয় এবং অধিক খমতা সম্পন্ন। আর যদি আপনার বাজেট কম থাকে তাহলে তো আর কিছু করার নেই আপনি ২১০০ অথবা ২৪০০ বাস স্পীড এর রেম কিনে নিতে পারেন।

গেমিং পিসি ২০২০ বিল্ড এর জন্যে সলিড ড্রাইভ ঃ

গেমিং পিসির জন্যে সলিড ড্রাইভ সবচাইতে গুরুত্বপূর্ণ দিক, কারন আপনার আপনার প্রসেসর বা রেম জতই খমতা সম্পন্ন হোক না কেনো আপনার যদি সলিড ড্রাইভ না থাকে তাহলে কোনো কাজে আসবে না আপনার প্রসেসর স্পীড ,

বর্তমান সময়ে ৯০ % মাদারবোর্ড M2 / PCIe Gen3 সলিড ড্রাইভ সমর্থক, যদি আপনার বাজেট থাকে কম তাহলে আপনি একটি m2 সলিড ড্রাইভ কিনে নিবেন, ১২৮ জিবি M2 এখন ২৬০০ টাকার মদ্যেই পাওয়া যায়, আর যদি আপনার স্বাভাবিক বাজেট থাকে তাহলে আপনি PCIE Gen3 সলিড ড্রাইভ কিনে নিবেন অবশ্যই,
এই সলিড ড্রাইভ এ আপনার কোন প্রকার ফাইল / ডাটা রাখার জন্যে নয়, এটা হচ্ছে আপনার সিস্টেম পার্টিশন এর জন্যে,
আপনার যদি বাজেট ভালই থাকে তাহলে আপনি ৫০০ জিবি একটি সলিড ড্রাইভ কিনে নিতে পারেন আপনার গেম লোড করে রাখার জন্যে। একটি হার্ড ড্রাইভ থেকে সলিড ড্রাইভ কত দ্রুত কাজ করে তা আপনি ব্যাবহার না করলে বুঝতে পারবেন না।

গেমিং পিসির পাওয়ার সাপ্লাইঃ

গেমিং পিসি এর জন্যে পাওয়ার সাপ্লাই কিনার খেত্রে আপনার মাদারবোর্ড এবং গ্রাফিক্স এর Requirement অনুজাই কিনতে হবে, মনে করুন আপনি গ্রাফিক্স কার্ড কিনেছেন সেটার requirement হচ্ছে ৬০০ ওয়াট কিন্তু আপনার পাওয়ার সাপ্লাই হচ্ছে ৪০০ ওয়াট, এখানেই সমস্যা।

এবং একটি ভাল ব্রান্ড এর পাওয়ার সাপ্লাই অবশ্যই কিনবেন, কেনোনা ইলেকট্রিক সমস্যায় একটি সস্থা পাওয়ার সাপ্লাই আপনার গটা সিস্টেম কে পুরিয়ে ফেলতে পারে।

গ্রাফিক্স কার্ড ঃ

গেমিং পিসি এবং গ্রাফিক্স কার্ড এর এই দুটি বলতে গেলে একটি সব্ধ, কেনোনা একটি গ্রাফিক্স কার্ড ছাড়া গেমিং পিসি সম্পূর্ণ অসম্পূর্ণ, আপনি যত ভাল কনফিগারেশন এর পিসি বিল্ড করেন না কেনো, যদি কিনা আপনার পিসি গ্রাফিক্স কার্ড না থাকে তাহলে সেটি একটি সাধারন পিসি হিসেবেই ধরা হবে,

গ্রাফিক্স কার্ড সিলেক্ট এর খেত্রে আপনাকে আপনার প্রসেসর এর ব্যাপার মাথায় রাখতে হবে, কারন একটি কম খমতার মাদার বোর্ড এর সাথে যদি আপনি উন্নত মানের গ্রাফিক্স কার্ড ব্যাবহার করেন তাহলে আপনি সিস্টেম Bootle Neck করবে, আপনার গেমিং পিসি এর কনফিগারেশন অসম্পূর্ণ রয়ে যাবে।

মনে করুন আপনি একটি Core- i3 দিয়ে গেমিং পিসি ২০২০ বিল্ড ক্লরতে চাচ্ছেন এবং এর সাথে আপনি পছন্দ করেছেন NVDIA RTX 2060 এতে করে কি হবে ?
কিছুই না আপনি কোন পারফোমেঞ্ছ পাবেন না, শুধু বটল নেক হবে, তাইলে আগে বটল নেক এর ব্যাপার তা মাথায় রেখে বাজেট অনুজাই গ্রাফিক্স কার্ড কিনুন, নয়ত দেখা যাবে আপনার পুরো স্বপ্নই বৃথা।

অপারেটিং সিস্টেম ঃ

গেমিং পিসি তে অবশ্যই আপনি উইন্ডোজ ব্যাবহার করবেন, এবং বর্তমান সময়ে উইন্ডোজ ১০ গেমিং এর জন্যে ভাল অপ্টিমাইজ করা, এবং একটি জেনুইন উইন্ডোজ কিনে নেবার আহ্বান রইলো,

গেমিং পিসি বিল্ড এর সেশ কথা ঃ

গেমিং পিসি ২০২০ বিল্ড এর সব সেশে বলতে চাই,
কিনার আগে আপনার বাজেট নিয়ে চিন্তা করুন এবং সঠিক পণ্য টি সঠিক দাম দিয়ে কিনুন, অবশ্যই কোনো লোকাল শপ থেকে কিছু কিনবেন না, দেশে ভাল অনেক প্রতিষ্ঠান আছে জাদের সার্ভিস শতভাগ ভাল। আপনি লোকাল শপ থেকে হয়ত ২০০-৫০০ টাকা কমে পণ্য কিনতে পারবেন, কিন্তু কিনার পর আপনাকে প্রছুর হয়রানীর স্বীকার হতে হবে। তাই কিনার আগে শপ এর ব্যাপারে জেনে কিনুন।

নিচের লিঙ্ক থেকে দেখে নিতে পারেন কম বাজেটে কিছু গেমিং পিসি ২০২০ বিল্ড ঃ

https://www.pcgamer.com/pc-build-guide-budget-gaming-pc/

2 Pings & Trackbacks

  1. Pingback: স্টিম থেকে ডাউনলোড স্পীড খুব কম ? - NerdEan's Lab

  2. Pingback: Pubg Best Launch Option And System Setting / Graphics Setting - NerdEan's Lab

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।